.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

সোমবার, ১২ মার্চ, ২০১৮

দহন

       ।।     রফিক উদ্দিন লস্কর     ।। 

(C)Image:ছবি









জও তীর্থের কাকের মতো প্রহর গুনি 
তোর ভাবনার করিডোরে পায়চারি করি
মায়াজালে আবদ্ধ, খুঁজছি মুক্তির দিশা।
অদৃশ্য ছায়ার মতো তোর ভাবনাগুলো
মৃদু স্পর্শ ছাপ ফেলেছে
  মনের অতলে
সেই থেকে বিবাগী, ধারে এনেছি ভিসা।
ফেরারি পাখির মতো ভবঘুরে সারাদিন
চোখের সাথে ভীষণ আড়ি রাতের ঘুম
 
ঘন তমসায় হাঁটাহাটি উল্টো পথে চলে।
নগ্ন পায়ে বহুদূর গিয়ে হঠাৎ মনে পড়ে
পাপোষে জমা পড়া সেই অতীত স্মৃতি
 
মাঝে মাঝে উঁকি দেয় মনের অন্তরালে।



১২/০৩/২০১৮ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি (আসাম-ভারত)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন