.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ৬ মার্চ, ২০১৮

ভাবমূর্তি

।। অভীক কুমার দে ।।


(C)Image:ছবি








ত্তপ্ত ভাব
উগ্র মূর্ত
ভাঙছিস মূর্তি ?
ধুলো বাঁচিয়ে চোখ খুলে দেখ
মূর্তিতে তো প্রাণ থাকে না,
ভাব ছিল। ভাবছিলি তুই পাথর গেছে ! না।
যখন ভাঙছিলি--
তোদের মুখের উপর চোখ দেখেছি অনেক
অতিরিক্ত ছায়ায় অচেনা হচ্ছিলি,
ধীরে।
কীরে, তোরা না গঠন জানিস ?
মনের গঠন, ভাবের গঠন...
ওদের কথা তোদের ব্যথা
হাতুড়ি মেরে জানিয়ে দিলি !
বাইরে মূর্তি ভেঙে গেলে
স্থায়ী হবে ভেতর ভাব,
ভাবমূর্তির
কী আর ভাঙন হয় রে ?
চোখের উপর চোখ রেখে দেখ
তোর ছবিতেই মূর্তি- মাপ।





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন