.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ১৩ মার্চ, ২০১৮

শুলে দেওয়া মানুষটির মতো

মূল অসমিয়া:রৌসন আরা বেগম
অনুবাদ:পার্থ সারথি দত্ত

(C)Image:ছবি









শুলে দেওয়া মানুষটির মতোই
লম্বা করে কেটে, বেঁধে ফেলে কর্কশ কথাটি

গোধূলির সূচনায় তীরের মতো
ছোঁ মেরে নেমে আসা
বৃষ্টির কয়েকটি ফোটা
এক শোষণে গিলে ফেলল
কচি পাতার গানের কলিগুলো
উঁচু দেহটি দিয়ে নেমে
কথাটি অন্ধকারে মিশে গেল

পূবে ভোরের ঈষৎ আলো উঁকি দেওয়া অব্দি
খালি বোতলটার কাছে মুখ থুবড়ে পড়ে থাকে
নেশাখোর দেহটি ৷
       ----------0------------      
 (প্রান্তিক,জুলাই,,,২০১২)

   


   

     





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন