.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ২৩ মার্চ, ২০১৮

দিনযাপন




।। সুমিত্রা পাল ।।


ন্তরিক নির্মাণশৈলীতে
            স্পষ্ট হয়ে ওঠে ঝড়ের মতিগতি
মন্দিরের ঘণ্টাধ্বনিতে সুসংবদ্ধ প্রার্থনা ও আরতি
স্থির নিশানায় আজও অবিচল দৃষ্টিভঙ্গি
যেমন ভোরের আবহে ভৈরবী রাগিণী...
                        সমর্পিত তুমি আর আমি
                                    হেঁটে যাই জন্ম জন্মান্তর

                                                হৃদয়ে শাশ্বত যুগলপদাবলী।





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন