.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ২ মার্চ, ২০১৮

মনের উঠোনে

     
         
      ।।      রফিক উদ্দিন লস্কর      ।।


(C)Image:ছবি













তোমার জন্য এ প্রাণ যদি দেহত্যাগ করে
তবুও তোমার কাছে যাবো না কোনদিন।
 
কারণ......
তোমার অবহেলা বারবার স্মরণ করিয়ে দেয়
একদিন দূরে যেতে হচ্ছে ইচ্ছের বাইরে।
হয়তো হাসছো তুমি আমার কথাগুলো শুনে
তাতে মন্দ নয়, হাসি মুখে তো আছো।
আর পারলে ঐ রঙিন আকাশে এঁকে দিয়ো
 
বৈশাখীর কালো মেঘে আমার নাম।
শ্রাবণের ধারায় মুছে দেবে তোমার অজান্তে
থাকবেনা কোন আফসোস সেদিন।
এমনিতে ভুলে যাবে অতীতের সকল কাহিনি

কারণ......
ইচ্ছের বাইরে তো আর জোর করে লাভ নেই।
এক নতুন পৃথিবীতে তোমার স্বপ্ন বপন করে
ফুলে ফলে ভরে নিও তোমার চাওয়া পাওয়া।
আমি সেদিন দূর থেকে বিনিদ্র চক্ষে তাকাবো
আকাশের তারা হয়ে থাকবো মনের উঠোনে।


০২/০৩/২০১৮ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি (আসাম-ভারত)





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন