.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ৭ মার্চ, ২০১৮

ভ্রম
















।। সিক্তা বিশ্বাস ।।


কে তুমি এলে আমার স্বপ্নলোকে  !
খেলেছো একি নিষ্ঠুর খেলা--
নিয়ে ছলে ,বলে , কৌশলে !
যে ছিলো নির্ভীক ! দাম্ভিক ! আত্ম-অভিমানী !
তাঁরে নিয়ে এ ছলনা !
  কি করে যে মানি !
এসেছিলে প্রিয় বন্ধু হয়ে ,
বন্ধুত্বের দাবি অন্তরে নিয়ে ,
করে প্রণয়ের প্রাণ প্রতিষ্ঠা ---
নির্বিকার ঘুরে বেড়ালে হেথা-হোথা !
এ হৃদয়কে সর্বংসহারা করে দিয়ে !
মনে ছিলো , এ ছলনার পাবে নিশ্চয়ই তুমি কঠোর সাজা !
কাঙালের মতো ছুটে বেড়াবে হয়ে কোথাও মনমজা !
কৌশলে বোঝালে আমায় বারে বারে !
এ নয় তোমার বরাদ্দ !
  তুমি স্বচ্ছ স্ফটিক  !
এ শুধু আমারই ভুল !
  দিতে হবে আমায়ই মাশুল !
যখন বেঁধেছিলে প্রণয় ডোরে ,
ছিলো আশা ,এ ভালোবাসা শুধু আমার 'পরে !
আমি গরবিনী ! এ শুধু আমারেই যে সাজে !
ভাঙলো
  ভ্রম !  পেলাম তোমায় নির্লিপ্ত !
ভুল ! সবই ভুল ! প্রণয় বেঁধেছে বাসা শুধু এই হৃদ-মাঝারে !
আমি যথাযথ সংবৃত ! অপমানে মরি লাজে !
ততদিনে একি তীব্র প্রলয়-ঝঞ্ঝা এ অন্তরে !
রয়েছে সদা সক্রিয় ! ভুলবার চেষ্টায় বারে বারে!
কিন্তু হায় !
  কি তার উপশম !?
রয়েছে যে প্রেম
  ধিক্ ধিক্ জ্বলন্ত অগ্নিশিখার ন্যায় ---- 
জিঘাংসায় সদা সক্রিয় এই তৃষার্ত হিয়ায়
  !
যতই তারে ভুলতে চাই !
ততই দুর্বার তার স্পন্দন পাই
•••
বুঝলাম এ জ্বলন্ত ! হয়না বিলুপ্ত !
এ যে সংশপ্তক ! চির সজীব ও শাশ্বত
•••
সয়না উপেক্ষা ! রয়না নিশ্চুপ !
  নির্লিপ্ত !
আত্মমর্যাদায় ,আত্মগ্লানিতে সদা ক্ষিপ্ত !
আছি আজ সংশয়ে !  কি করে এ মনরে বুঝাই !?
মন , এ নয় তোর প্রাপ্য !এ এক ঝটিকা মাত্র !
এসেছিলো অকালে অনাবিল অদম্য অনাহূতের ন্যায় !!
রয়ে গেলো...জ্বলন্ত অঙ্গার হয়ে চির জীবন্ত ----
ধিকিধিকি !!
  এ হৃদয়ের গোপন মণিকোঠায় !!!
                 *********************

#ঝোড়োমেঘ#
    ৬ -৩ -১৮ ইং,
   #শিলং#




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন