.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ২৯ নভেম্বর, ২০১৭

কবিতা তুমি আয়না হলে

।। অভীক কুমার দে।।

(C)Image:ছবি
























.
ভেতরে এক শিশু,
হাসে কাঁদে
জীবনপথে শব্দের খেলনা গাড়ি ছুটে
.
কবিতা তুমি আয়না হলে
বাঁচাও, বেঁচে থাকি; তুমিও...
অযথা চাই না কোন প্রলেপ বিহীন কাঁচের দেয়াল।
.
প্রলেপ বিহীন কাঁচের মুখোমুখি হলে অদৃশ্য বন্ধনী
গিলে খায় দেহভাষা
ভেতর শিশুর অসুখ বাড়ে
.
কবিতা তুমি আয়না হলে
মন মায়াবী আকাশে নিঃসীম পূর্ণতা।
..................



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন