.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭

ভবের পাগল


















   ।। সিক্তা বিশ্বাস ।।
হাসছো তাঁরে ক্ষ্যাপা বলে
তাঁর ক্ষ্যাপামো আপন তালে
তোমরা যারা ভবের রাজা
তাঁরে কাঁদিয়ে কি পাও মজা !
পাগল বলে হানছো আঘাত !
ছুঁড়ছো পাথর নিচ্ছ মজা !
পাগল সে যে মনের রাজা
 
দিচ্ছ তাঁরে এ কেমন সাজা !
হাসছে সেও  সবারে দেখে ,
হচ্ছে অবাক পাগলামো ভেবে !
এ কেমন খেলা ,আনন্দমেলা ---
আঘাত হেনে
  সারা বেলা !
ভাবায় তাঁরে বারে বারে 
অধিক আনন্দ বুঝি নেশার তোড়ে !
আজ জীবিত কাল সে মৃত !
তাই বুঝি এই
  সুধামৃত
থাকোনা যে যাঁর মত ভালো
আঁধার কেটে হবে আলো
 
পাগলামো সব যাবে চলে
 
আত্মতুষ্টির আপন তালে
##ঝোড়োমেঘ সংকলন ##
      শিলং l



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন