.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

সোমবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৭

বিষদাঁত

।। কপোতাক্ষী ব্রহ্মচারী।
(C)Image:ছবি










ই বাড়িটিতে দুটো সাপ খেলা করে।
রোজ রাতে ছায়ার মতন, আসে ঘরে।
সন্তানের মুখে চুমো
  খেয়ে-
অবসন্ন দেহে একে অন্যকে জড়িয়ে,
বিষ ঝাড়ে পরস্পর, বাড়ে প্রত্যাঘাত,
ক্রমশ গভীর হয় রাত!
নবরবি প্রভাতের আগে,
সাপের খোলস ছেড়ে নরনারী মূর্ত অনুরাগে-
বলে,- সুপ্রভাত!
শিশুটির খেলাঘরে,অগোচরে জন্ম নেয় দুটো বিষদাঁত!



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন