.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শনিবার, ৬ মে, ২০১৭

তিন তালাক

।। চিরশ্রী দেবনাথ ।।


(C)image:ছবি





















...............
ঠাৎ যেন গুঁড়ি মেরে সামনে দাঁড়ালো তীব্র হয়ে 
বাদে প্রতিবাদে চলছিল বহু যুগ, পঁচন নিয়ে, ক্লেদ মেখে, ভয়ের ফোয়ারা ছুটিয়ে, পুরুষ সেজে, 

 "তিন তালাক'
শুধু সামাজিক নিরাপত্তা, অন্ন, বস্ত্র। 
ভালোবাসা  কোনও কিছু নয় এখানে, কিংবা সংযোগের সেতু! 
মেয়েটি অন্ধকারে ঢাকা, 
জোড় করে নিতে চায়, মিলিত দিনযাপন, ফুলের বিছানা
এ পৃথিবীতে আজও তাকে বেঁচে থাকতে, ভিজে উঠতে, ফল পেতে,
একটি "খালি "সম্পর্কের জন্য, যুদ্ধ যুদ্ধ খেলতে হয়। 
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন