.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ৫ মে, ২০১৭

কিছু স্মৃতি

           ।।রফিক উদ্দিন লস্কর।।
(C)Image:ছবি
















সারা রাত কেটে যায় ঘুম নেই চোখে,
জেগে থাকি সারা রাত চন্দ্রালোকে।
খুঁজি জোছনা বুক ভরা দুঃখের ক্ষত,
অবিরাম বাজে বুকে একতারার মত।
দূর অতীতের দুঃখ ঘিরে রাখে আমায়,
স্মৃতি হয়ে বারোমাস আমারে কাঁদায়।
তুমি চলে গেছো এ রাতে কোন সুদূরে,
হৃদয় মাঝে কান্না আসে অচেনা সুরে।
তোমার যাত্রা ছিলো বহতা নদীর মত,
যাবার বেলা করুণ সুরে ডাকতে কত।
মুখ ফুটিয়ে উচ্চস্বরে বলতে হাসিহাসি,
আমি প্রাণের চেয়ে তোমায় ভালোবাসি।
তৎপরে হারিয়ে গেলে খুঁজে পেলাম না,
বোবাকান্নায় অশ্রু ঝরাই হারাই চেতনা।
একাকীত্বে দিন কাটে লাগে বড় অসহায়
বিরহ আপন করে বুকের মাঝে জড়ায়।
ব্যস্ত নগর শুনশান হয়ে পড়ে যায় যখন,
ধীরে ধীরে জেগে ওঠে সেই অচেতন মন।
০৫/০৫/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি(আসাম)



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন