.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

সোমবার, ১ মে, ২০১৭

ব্রেক-আপ

  ।। মধুমিতা নাথ।।


























সেই সময়ের সঙ্গে কথা হয়নি হয়তো বা ---
শূন্যতায় থেমে যাওয়া

পেট্রল-পাম্পের বিশাল কিউতে সন্ধ্যে গড়ায় , ভিড় বাড়ে
বস্তি উচ্ছেদের পর ফুটপাতে ঘুমিয়ে অভ্যস্তরা
প্যাকিং বাক্সের টুকরো জড়ো করে যে যার মতো ,
মায়ের শুকনো স্তন চুষে
ক্লান্ত অবোধ শিশুর গোঙানির আওয়াজও থেমে গেছে

ব্রেকিং নিউজ ----
ধর্মের নামে বলি হলো আরো দুই ,
সামাজিক সালিশি সভায়
প্রকাশ্যে বেঁধে জুতোপেটা করা হলো যে মেয়েটিকে ---
এই ভর সন্ধ্যায় তার চোখে আর জল ঝরে না

চৌমাথার মোড়ে তার্কিক আড্ডা
নিজেদের ভোটে জেতানো জননেতার আদ্যশ্রাদ্ধ
সঙ্গে মসলা-টি

কর্পোরেট অফিসের
দশটা-সাতটা স্থির বেতনের ডাটা-এন্ট্রি-অপারেটর ছেলেটি বাসস্ট্যান্ডে
দিনের খাটুনি সেরে ঘেমো গায়ে ডিওডোরেন্ট মেখে
প্রতীক্ষায় ---- প্রেমিকা আসবে ...
তিরিশ এপ্রিল
পকেটে এখনো
সিগারেট এর বরাদ্দ বাঁচানো কড়কড়ে পাঁচশ
অভিমান ভাঙাতে দামী রেস্তোরাঁ চাই

নিথর সময়ে আধুনিকতার টুং টাং ---
"সরি ,
 আসছি না
 পার্টি দিচ্ছি বন্ধুদের নিয়ে
 সেলিব্রেটিং ব্রেক-আপ উইথ ইউ ..."

             ----------------//------------


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন