.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ১২ মে, ২০১৭

গ্রহান্তরে

চীরশ্রী দেবনাথ 


 
(C)Image:ছবি























(প্রকাশিত "ভাষাসাহিত্য’, এপ্রিল,  দুই হাজার সতেরো)
.......
ঙ্গল গ্রহের মানব মানবী
পৃথিবী থেকে নিয়ে যেতে এসেছে ক্ষুধার সুগন্ধি,
ঈর্ষার কারুকাজ, প্রেমের নিঃসঙ্গতা, সঙ্গমের দৃশ্যান্তর,
তারা দেখতে এসেছে,
ভরা কোটালের দিন শরীরে কি জেগে ওঠে ফসলের মাঠ
ধূপ জ্বালা করা চোখে কিভাবে ভেসে আসে ঈশ্বরের জল,
পশুর লোম ঝরা আলপথে কি থাকে নারীর আদর
এসবই সাজাতে হবে লালগ্রহের শূন্যতায়
পৃথিবীর খামে খামে আজ সাজানো ইন্দ্রিয় সুখ, তমোগুণ, অস্থির ঋতুর ঝড়ো দিন,
সবকিছু নিতে চায় ভিনগ্রহ
নিঃশর্ত মৈথুনে তারা জন্ম দেবে নিখাদ কালো মানুষের...








একটি মন্তব্য পোস্ট করুন