.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বৃহস্পতিবার, ১১ মে, ২০১৭

নষ্ট মেয়ে

।। সুরজিৎ মণ্ডল ।।

(C)Image:ছবি




















ই মেয়ে, লোকে বলে,
লক্ষণ নাকি মন্দ।
তোর কষ্টের মধ্যেই তারা,
নেয় পৈশাচিক আনন্দ।
বলে, পুরুষ যেমনি হই!
আচরণ পশুর মতো।
বাঘের যেমন হরিণ খাওয়া,
শাস্ত্র, বিধি সম্মত।
অতীব তারা নিষ্ঠুর, ইচ্ছে,
তোর মাংস খেতে,
মানুষ তুইও, কষ্ট আছে!
ভুলে কাম লালসাতে।
তলোয়ার শান দিতে চায়,
তোর দেহের পরে।
পরোয়া করেনা, হায় রে নষ্ট
যাস যদিও মরে।
পিশাচ তারা বটেই মেয়ে,
তুই তো নষ্ট নস।
নষ্ট শুধুই দ্রব্য হয়,
মেয়ে? নেই দোষ।
কত দিবি অগ্নি পরীক্ষা,
সতী কি অসতী!
আজকে বাধ ভেঙ্গে দে,
সতীর নেই ক্ষতি।
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন