.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ১৬ মে, ২০১৭

ছোট-বড়


             ।। রফিক উদ্দিন লস্কর।। 

(C)Image:ছবি

























ভালোবাসার সুতে বোনা স্বপ্ন আছে হাজার,
কত রঙ বেরঙের চলে খেলা এ বিশ্ব মাঝার।
লাল গোলাপি কর মাঝে বোনের বাঁধা রাখি,
ইষ্টিশনের রেল ছুটেছে শরাব বিলায় সাকী।
পান্তাভাতের থালার মাঝে হাত পড়েনি আজ,
পেটের খিদায় পরাণ যায় ভাঙেনি তার লাজ।
সোনার চামচ হাতের মাঝে বাতানুকূল ঘরে,
ফলমূল আর দৈ মাখনে ভাতের পেটটা ভরে।
সোনার খাটে বসে বসে করে আরাম আয়েশ,
আস্তাবলে দিনকাটে যায় মনে কতো খায়েশ।
গায়ে নিয়ে জরির পোশাক বসে আছে মহলে,
ছিন্নবাসে ফুটপাতে রয় পরাণ কাঁপে টহলে।
রাতের বেলা দিনের প্রকাশ কুড়ি পঁচিশ বাতি,
নিকষ রাতে পথের মাঝে ভয়ে কাঁপে ছাতি।
রাজপথেতে ছুটার বেলা বসে নরম কুশনে,
খালি পায়ে রোদ মেখে যায় ঘর্ম ঝরে ভূষণে।
দিবসান্তে ক্লান্ত হয়ে ঠাণ্ডা পানীয় করে পান,
কর্ম সেরে ঘরে ফেরে জলের গ্লাসে দেয় টান।
              -------------------------------
১৬/০৫/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি(আসাম)



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন