“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো ,স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ...তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!—সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!” ০কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ০

বৃহস্পতিবার, ১ নভেম্বর, ২০১৮

মালতী

কয়ডা দিন থ্যেইক্যাই পরানডা খুব খারাপ 

খারাপ মানে কি, ভ্যালা না ।

সবসময় মনডা উদাস উদাস হইয়া থাকে, 

না না নিজের লাইগ্যা না, মালতীর----।

তারে যে নেশায় পাইছে ভটভটির, 

আরে, ওই যে গো, ওই যে পুলাডা

পেডে বিদ্যা নাই, তবে  চমচমি ঢের 

কয় না পার্ট্টির  জমানা, ঝান্ডার ঝমঝমি , 

হে তো পাট্টি করে, ভাবে কিসে তার কমি ।

অহনে তো ইলেকশন আইছে

হাতও দুইডা পুইসা ---,

ফুত্ ফাত্ ভটভটি চালায় 

আর মাইয়া পডায় ---।

হালার পুতে কাম সারছে, 

আমারে অক্করে মাইরা ফালাইছে ।

মালতী তো ইসবের কিচ্ছু  বুঝে না,  

যা বুঝান যায় তাই কয়, 

ভটভটির লগেই হিয়ের ভাব হয়।

 মাইয়াডা কিন্তু সত্যি খুব ভালা ।

আসলে খুড়া  বুঝলা,  সবডাই কপাল --

হে হইল কলির কেষ্ট, আর আমি  নাড়ুগোপাল।

বুঝলা খুড়া, 

কয়টা দিন ধইরা 

পরানডাত একডা কষ্ট ,

ঠিক কষ্ট না, টিবলে বুঝন যায় না, 

ব্যাথা নাই, কিন্তু ব্যাথা আছে

হ, পরানডার ভিতরে কুনু একডা যন্ত্রে

চিনচিন কইরা উঠে

চক্খু ভইরা পাণী আয়, 

না,  নিজের লাইগ্যা না, মালতীর ----।

হ, মাইয়াডার লাইগ্যা পরাণডা কেমন কেমন করে 

আইজকাল তো আর মাইয়াডা 

আমার কাছে আইয়ে না  ।

ওই যে ওই কাঠলতলা,  নদীর ঘাট

এখন তার আওনের সময় নাই ।

যখন তখন -- উঠলে বাই, শহর যাই ।

আর পুলাডাই বা কি

চোক্খের সামনে ফুঁত করি 

উড়াইয়া লইয়া যায় ।

লাজ লজ্জার কুনু বালাই নাই 

 তবে হ,  মালতীর কুনু দুষ নাই , 

হেই বেচারী তো  জানে না 

চমচমি বেশি দিন থাহে না ।

আসলে খুড়া সবডাই আমার  কপাল 

হে হইল কলির কেষ্ট, আর আমি নাড়ুগোপাল ।

সত্যি কইতে কি খুড়া, 

জীবনডা যেন কিরকম হইয়া গেছে 

আইজকাল আর সুজা পথে চলে না।

সবসময় কিরকম একটা ডর ডর ভাব

না না, নিজের লাইগ্যা নয়, মালতীর ---।

পুলাডা তো তারে চুইস্যা লাইছে ।

তারে চুড়ি দেয়, মালা দেয় 

রঙিন চশমা দেয় , 

আর মাইয়াডাও পাগল হইয়া যায়, 

হেগো তো খুড়া, অভাবের সংসার 

চৌক্খে রঙিন দুনিয়া ;

আমারে আর চিনতে চায় না , 

আমার কুনু দুঃখ নাই, 

কিন্তু দিন তো ই রকম যাওনের না ।

হেই জানে না, আমি জানি ।

আমি জানি পুলাডার সব

তার  পাচ পাচটা মালতী আরো আছে, 

হেগোরে লইয়্যা হে শহর যায়, 

ঝুপে জঙ্গলে যায় 

যখন যেখানে ইস্স্যা 

আদর কইরা চুড়ি দেয়, মালা দেয়, 

আর বন্ধ ঘরে লইয়া গিয়া  মালতীর মত ---।

না, থাক, থাক  হি কথা ---,

কিন্তু মালতীর কুনু দুষ নাই, 

হেই বেচারী তো কিচ্ছু জানে না 

সবডাই বয়েসের দুষ, শরীরের টান

আর পুইসার  চমচমি, 

মালতীর কুনু দুষ নাই ।

সত্যি কইরা কই খুড়া, 

মাইয়াডা কিন্তু সত্যি খুব  ভালা।

আসলে বুঝলা খুড়া,  সবডাই আমার  কপাল 

হে হইল  কলির কেষ্ট, আর আমি নাড়ুগোপাল ।






একটি মন্তব্য পোস্ট করুন