.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ২৫ এপ্রিল, ২০১৮

আমি হিমু হতে চেয়েছি















মি হিমু হতে চেয়েছি দুইদিন,
তারপর মনে পড়লো হিমুরও একজন
রূপা ছিল ।

যে ছেলেটা আমাকে কাকা বলল
সামান্য আলো পাওয়ার আশায়...
সে আমার সমবয়সী ।

একটা গান বেশিক্ষণ শুনলে ঘেন্না জন্মায়
তোমার বেলা উল্টো হল, তোমাকে শুনতে না পেতে পেতে
ঘেন্না ধরে গেল ।

আমাকে যারা বিশ্বাস করার কথা
তারা করতে পারেনা ।
আমাকে যারা বিশ্বাস করার কথা নয়
তারা অনায়াসে বিশ্বাস করে ।
আমারো মাঝে মধ্যে ইচ্ছে জাগে,
নিজেকে একবার বিশ্বাস করে দেখি,
নিজেকে একবার অবিশ্বাস করে দেখি ।।





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন