“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো ,স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ...তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!—সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!” ০কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ০

শুক্রবার, ১৩ এপ্রিল, ২০১৮

পহেলা বৈশাখ

      ।। রফিক উদ্দিন লস্কর।। 

(C)Image:ছবি













প্রাণ খুলিয়ে গাইব গান পহেলা বৈশাখে
বৈশাখ এলো প্রকৃতি হাত বাড়িয়ে ডাকে।
সূর্য থেকে অগ্নিসম রোদরা নেমে আসে, 

গরম 
রম অতি গরম যাচ্ছে সবাই মিশে। 
রুদ্র পবন মেঘের ছায়ে ঝড় লুকিয়ে রাখে, 

শিলাবৃষ্টি ঝড়ের মিলন হয় প্রতি বৈশাখে। 

যতই উড়ুক ধুলোবালি কালবৈশাখী ঝড়ে
পান্তা ইলিশ জিলিপির স্বাদ তা মনে পড়ে।
নেই ভেদাভেদ সবাই মিলে উৎসবে সামিল, 

দুঃখ যাবে হাওয়ায় ভেসে আনন্দ অনাবিল।
নারী-পুরুষ যুবক বুড়ি মেলাবো ছন্দে সুর
নতুন সাজে শোভাযাত্রায় অশুভ হবে দূর।
সকাল থেকেই চলবে শুধু বিশ্বশান্তি প্রার্থনা,
আমরা বাঙালী আনন্দে হার-জিত খুঁজি না।


১৩/০৪/২০১৮ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি (আসাম-ভারত)

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন