.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ২ জুন, ২০১৭

মুই ভুখা আছি



।। মধুমিতা নাথ।।

(C)Image:ছবি













বাপ ---
বেজান ভুখ লাগল রে
রাইত ভর বেহুঁশ রইলি বটেক
তর ভুখ ভী নাহি লাগে ?

চুখের পানি মুইছে
মাই মু'কে দু'ঠো বাতাসা খিলাইল
পানি ভী পিলাইল
সিলক ভী সুনাইল
তু বেজান ঘুমাইলি বটেক
আন্ধার ঘরে বাত্তি ভী নাহি জ্বলল
লেকিন মু'র ইকটা সপন আইল গ ----

টিল্লার  ঢালে হরা পাত্তির
বন পলাশীর গাছে
থুকায় থুকায় লালের ফাঁকে
মন মহুয়া লাচে

ঢিমির ঢিমির খামের তালে
ঝুমুর ঝুমুর বুলে
মরদ সাথে মিয়ার লাচে
চিকন কমর দুলে

মহুয়া মদে মাতাল মরদ
কতক ঢুইলে পড়ে
মজুর দিলের পরান-সুহাগ
পুনম-চান্দা ঝুরে

বুজাই দিছে ভুখা পেটের
আগুন লাগা দুখ
ফাগুন রাত্তি পুহাই গেলে
সুরজ দিখায় মুখ

ঐ বাপ -----
মুর সপনটা ভেঙ্গে গিল গ
ভুখ লাগিছে
মুই সুরজ চিবাই খাবক
মু'কে এক বিহান সুরজ জুগাই দে ----

মাই ত গেল বাবুর বাড়ি
ফিরবে দুপর হইলে
তু ভী যাবিক রিগার কামে
মুই চলি ইস্কুলে

ভাল্লাগে না লিখা পড়া
নাহি করবক হামি
পড়ার ফাঁকে ডিম-খিচুরি
মু'র কাছেতে দামি

বিহান বেলায় ভাতের জুগার
ইখন কুথায় পাই !
ঐ বাপ , মুই বিসর ছিলুম
আইজ ত ইস্কুল নাই !

ঐ বাপ ----
ভুখ লাগিছে

তুই মু'কে কামে লিয়ে চল
থোড়াটা কাম সিখাই দে
মুই কাম গিলে খাবক
মু'কে এক টিল্লা কাম ত সিখাই দে -----

থোড়াটা সপন দিখাই দে
মুই সপন গিলে খাবক
মু'কে ইক দরিয়া সপন ত দিখাই দে -----

থোড়াটা সুরজ জুগাই দে
মুই সুরজ গিলে খাবক
মু'কে এক বিহান সুরজ ত জুগাই দে ...

            -----------//-----------


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন