.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ৬ জুন, ২০১৭

পরখাটালি

।। মধুমিতা নাথ।।

















বাপ ---
মুই'কে কিনে অকারণে করলি ইত্ত পর !

তুহার ঘরে সকল আছে
বিহানবেলার পান্তা আছে
কালা গাই এর দুধ আছে
দুধ পিলানের বাটি আছে
সুখা বাঁশের মাচাঙ আছে
আরও আছে তুহার দিলের সুহাগী আদর
ঐ বাপ ----
মিছা কিনে অকারণে মুই'কে করলি পর !

আটটা কেলাস পাস ত দিছি
সহরতলীর ইস্কুল গেছি
ইস্কুল বাড়ি ঠিক ত আছে
দিদিমুনির কেলাস আছে
ইস্টাইপেন্ডের টেকা আছে
নয় কেলাসে সাইকেল আছে
ফুলু আছে , দুলিও আছে ,
বাবুর মিয়ার দেমাকও আছে
আরও আছে ইস্কুল মাঠে গুল্লাছুটের আসর
ঐ বাপ ---
মিছামিছি মুই'কে কিনে করলি ইত্ত পর !

হামার ঘরে কারেন্ট বাত্তি
তবুও কিবল আন্ধার রাত্তি
হাতটা পুইড়ে ভাতটা রান্ধি
সান্ঝের বিলায় খোঁপাও বান্ধি
মরদ হামার রাতির বিলায়
জুয়া মদের আসর বসায়
মুই'কে বেচে হরেক রাত
মাছে মাংসে জুগায় ভাত

ঐ বাপ ----
তুহার বিটির অনেক আছে
চুমকি ঝিলিক শাড়ি আছে
নকল সুনার গয়না আছে
গন্ধবিলাস আতর আছে
বিছনা আছে , বালিশ আছে
আরও আছে বালিশ জুইড়ে চুখের পানির ঢল
ঐ বাপ ----
মুই'কে কিনে অকারণে পর করিলি বল !

তুহার ঘরেই ছিলুম ভালা
কতক ছিল ভুখার জ্বালা
করলা পাতায় সিদল ঝুলে
তুহার বিটির খুসি মিলে
রাজদুলারী বইলেছিলি
কুন দুষেতে পর করিলি
মিয়া হইবার কপাল দুষে ছাড়াই দিলি ঘর
ঐ বাপ ---
মিছামিছি অকারণে মুই ত হলুম পর

ঐ বাপ ----
যেমন ছিলিস তেমনি আছস
     মুই কেবলি পর
মিছামিছি অকারণে মুই ত হলুম পর ।।

                  ---------------//------------
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন