“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো ,স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ...তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!—সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!” ০কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ০

রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮

প্রেমিক

।। অভীক কুমার দে ।।

(C)Image:ছবি























খন সবাই বর্ষা ভেবে ভিজে যেতে চেয়েছিল
ঠিক তখন তোমাকে নত হতে দেখে
একটা বটবৃক্ষের সার থেকে শেকড় ছাড়তে দেখেছি,
দেখেছি তুমিও আমাকে মেঘ মনে করো, 

বাতাসে ভাসাতে চাও,
টলতে টলতে কিছু ফাঁপা তুলো আমি 

স্বপ্ন আকাশ চিনেছি তোমার বুকে;
তুমি ধুকপুক করেছো বারকয়েক
যখন সবাই বর্ষা ভেবে ভিজে যেতে চেয়েছিল
ঠিক তখন আমি নত হতে চেয়েছি তোমার কাছে।
.
বটবৃক্ষের সার থেকে যদি খুঁজে দেখো
সব আমি তোমাতে মিশেও বর্ষা হতে জানি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন