.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৭

একটি ব্যূহের ভিতর আমার জন্ম














  ।।শৈলেন দাস।।




একটি ব্যূহের ভিতর আমার জন্ম

আমার জন্মের বহু প্রজন্ম আগে
যারা রচে ছিল এই ব্যূহ
ক্ষমতা এবং সম্পদ কুক্ষিগত করে
তারা নিরাপদ অবস্থানে থেকে এখন
ক্রূর হাসি হেসে
আমার সবকিছু করছে নিয়ন্ত্রণ।
আমার শিরদাঁড়া যাতে শক্ত না হয়
আমার মধ্যে আত্মমুক্তির ভাবনা যেন না জন্মে
জননী জঠর থেকে বেড়িয়ে
আমি যাতে খুঁজে না পাই ব্যূহের ফাঁকফোকর
তার জন্য কড়া পাহারার বন্দোবস্ত
করেছে ওরা, ধাপে ধাপে
এবং অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, আশ্চর্যেরও বটে!
সেই ব্যূহ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব পালন করছে যারা
আনুকূল্য প্রাপ্তির অভিলাষে
তারা সবাই আমার স্বজন!
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন