.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ৩১ মার্চ, ২০১৭

আলো-ছায়া


।। অধিষ্ঠিতা শর্মা।।

(C)Image:ছবি
















মেঘ জমে জানালার কাঁচে ভীষণরকম
ঝমঝমিয়ে বৃষ্টিও নামে,
ভিজিয়ে দেয় সব ক্ষত।
অজ্ঞাতবাসের আস্তাকুড়ে লুকিয়ে থাকে আলোর জখম-
ফাঁকা স্টেশনে রোজ আমার অপেক্ষা করে কেউ
শেষ ট্রেন আসা অব্দি ঠায় দাঁড়িয়ে থাকে,
তবু সে পায়না মনের খোঁজ।
শেষ ট্রেনে মন ফেরেনা বাড়ি
সিলিং ফ্যানে ঝুলতে থাকা নিজের প্রতিচ্ছবি -
প্রেতছায়া ভেবে আঁতকে উঠি হঠাৎ
বুকপকেটে যত্নে রাখা শেষ চিঠিও
আজ অন্তিম নি:শ্বাস নেয়,
শাশ্বত রাত্রির কাছে নিদারুণ সমর্পণে।
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন