.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ২৯ মার্চ, ২০১৭

অভিসার


।। অধিষ্ঠিতা শর্মা।।
















রাতের বালিশজুড়ে জেগে থাকে এক মায়া
শুধু আমায় হাত ধরে নিয়ে যাবার জন্যে
কোনো এক অতল স্তব্ধতায়।
অশরীরীকে নিয়ে মেতে উঠি শরীরী খেলায়
রতিক্রীড়ার মত্ত প্রহরে আলিঙ্গনপাশে
ঘর্মাক্ত প্রতি বিন্দুতে পুনর্জন্ম হয় আমার।
রক্তকণিকায় মিশে গিয়ে চিরচেতনায় জেগে থাকে
নৈশব্দ্যের যাত্রাপথে পরমপাওয়া প্রার্থিত শান্তায়ন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন