.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ, ২০১৭

প্রণয় কথা


।। শঙ্খ সেনগুপ্ত।।
















মুখ চেপে ছিলো।
চোখ ঢেকে ছিলো।
কান, সেও।
অনেকটা সময়।

স্বেচ্ছায় দূরে থাকাকে-
'চরম প্রাপ্তি' বলে, যারা উদ্বাহু
হয়ে নেচেছে এতটা কাল, সে
পরিত্যক্ত জলাশয়ের ধারে, তাদেরই
ছায়া চলাচল, ঘন হতে লাগলো, পুনরায় !

জলের বুকে বাতাসের দোলায় ভাসছে,
না ডুবে যাওয়া, একটি পুরো বাক্য-
আমি নিজেকে ভুলে যেতে চেয়েছি শুধু



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন