.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শনিবার, ২৫ মার্চ, ২০১৭

'অ'শরীরী


।। অধিষ্ঠিতা শর্মা ।।


















প্রতি রাতে দরজায় কড়া নাড়ে এক মানবী
অবয়বহীন। চেতনার অদৃশ্য ইশারার হাতছানি-
ফেলে যাওয়া ছাপে বাড়াই পা।
নীরব গোপন যাতায়াত, পথ নৈঃশব্দ্যের
সহযাত্রী সে চিরন্তন। হাত ধরি নেশাতুরভাবে।
হঠাৎ মিলিয়ে যায় অনন্তে
মোহের চোরাটানে আজ সে এক নিদারুণ কায়া,
আমিত্বের ধ্বংসের প্রান্তরে
থেকে যায় ছায়া...
শুধু ছায়া...




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন