.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭

একমুঠো সুখ


      ।।   রফিক উদ্দিন লস্কর   ।।

(C)Image:ছবি





















কমুঠো সুখ খুঁজিতে খুঁজিতে হায়,
সুখ যে আসেনা মোর আপন ভিলায়।
সুখের খুঁজে তার পিছনে শুধু ছুটে বেড়াই,
সেখানে ও গিয়ে দেখি সোনার হরিণ নাই।
হায়রে উদাসী আমার মন পাগলা...
 
কিসের নেশায় এই মরীচিকার পেছনে ছুটে চলা।
 
কাহার পানে মন ছুটে যায় বুকভরা আশা নিয়ে,
সুখ সে তো দূরের কথা, হাসি গুলো যায় লুকিয়ে।
 
মিথ্যে স্বপ্ন আশার ঘরে বুকে আগলে,
তাসের ঘরে ভাসি এখন চোখের জলে।
যাকে নিয়ে বুনন ছিলো এতো স্বপ্ন তোর,
 
সেতো এখন ভাঙ্গেরে তোর স্বপ্নের সেই ঘর।
আজ ব্যথার বোঝা হয়েছে যে পাহাড় সমান,
কালো কষ্ট মেঘে ঢাকা ঐ মনের নীল আসমান।
মিছে আশা আর বিশ্বাসে তুই হয়ে যাচ্ছিস অন্ধ,
তাই দিনে দিনে হয়ে যাচ্ছে তোর সুখের দরজা বন্ধ।
কেমনে খুলিবে সেই বন্ধ দরজা ওরে....
বিশ্বাসের তালায় যদি কোনদিন
  মরিচা ধরে। 
সুখের দরজা বন্ধ হলে আর গাইবো না কোন গান,
পড়ে রবে নিথর দেহ, থাকিবে না তাতে প্রাণ।
                          --------------
২৮/১২/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি
  (আসাম-ভারত)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন