.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৭

কবিতা: ১...২

এক..
(C)Image:ছবি












ড়টা উঠুক হয় এসপার নয় ওসপার
    
নিস্তব্ধ নির্জন একাকীত্বে
সঙ্গীহীন বাস্তু প্রতীক্ষায়
জনকোলাহলের সঙ্গীত সুরের,
যেখানে নৈঃশব্দ্য এঁকে দেয়
বিরহের আলপনা আলতো ছোঁয়ায়
সরীসৃপের গোপন পদচারণায়
জলজ আঁকিবুঁকি, বাস্তুভিটার
দীর্ঘশ্বাসে পূর্বাভাস আগামী ঝড়ের।


দুই

রিচা ধরা টিনের রঙের দিন
হেমন্তের পাকা ফসলের গন্ধবিকেল
অবুঝ সন্ধ্যায় লাশের মিছিলে
মৃত্যুর কালো ঘেরাটোপে
লিখে যায় সভ‍্যতারা মারণ ইতিহাস।
   




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন