.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৭

মুওর ছেফ ফুরেয়েদে

।। অভীক কুমার দেব।।

(C)Image:ছবি
















.
পাহাড়ি ঢাল 

ঝুপড়ি ঘর
ছোট্ট উঠোনে সত্তরের নবীন চাকমা
দু'চোখের শুকনো হ্রদে জীবননদীর ইতিকথা--
চোল্লেইভোট্ চোল নেই ভালকদিন ধুরি
ওলোন ছালানর ভোদা মুওনত্ এ'জ ভালক দিনর আগর পুরিযেয়ে দারবো
হালা মুওনত্ ধূপ ছেই গুলি
বিলেইয়র হারা হনা
একশাল্লের মুগোরবেই তুত্তুবিগুন
নিত্তো লামন্দি
হালি চোল্লেইবোত্ মুওন ঘঝন্দি
ছেফ ফেলেই জান্দোয়
আজলে মর মুওর ছেফ ফুরেয়েদে হয়দিন অ'ল !
.
কিলোর পর কিলো, চার পাঁচ ছয়...
ওজন নয়, দূরত্বের হিসেবেই ঠিকানা পাহাড়ে।
...................
****
(হাঁড়িতে চাল পড়েনি ক'দিন
চুলোর ভোঁতা মুখে এখনও সেই পুরোনো পোড়া লাকড়ি
কালো মুখে সাদা ছাই মেখে বেড়ালের খেলনা,
একচালার বাঁশ বেয়ে টিকটিকিরা রোজ নামে
খালি হাঁড়িতে মুখ ঘষে 

থুতু ছিটায়,
অথচ আমার থুতু শুকিয়ে গেছে কবেই !)



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন