.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ১ মে, ২০১৮

বিকল্প














।। সিক্তা  বিশ্বাস।।
   
না পেয়ে তোমার সাড়া 
                 আছি একাকীত্বে বাঁধন ছাড়া !!
        স্মৃতির পাতার আবেশ ঘিরে 
আজও কেমন তোমায় জড়িয়ে ধরা ....
কখনো আছি  জল-বিহারে...  
                 কখনো পড়ন্ত বেলায় স্বপ্নিল পাহাড়ে ...
         কখনো বা হাঁটছি মেঠো পথের  আলে আলে....
সোঁদা গন্ধের
  মাতাল তালে ....
বৃষ্টি কখনো চিবুক ছোঁয় ...
              তোমার ছোঁয়ার উষ্ণতায় ...
      সিক্ততার ও যে আছে তাপ ...
সেই উষ্ণতায় বাড়ায় উত্তাপ ....
এইতো দেখো, কেমন আমি বেশ রয়েছি !!
                    একাকীত্বে কেমন বাঁচতে শিখে গেছি !! 
           আজ যে বড়ই পাকা পোক্ত !!!
সব খোয়ানোর ঊর্ধ্বে কেমন তৃপ্ত - মুক্ত !!!
                ***************




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন