“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো ,স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ...তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!—সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!” ০কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ০

মঙ্গলবার, ১৫ মে, ২০১৮

জীবনের গল্প

।।     রফিক উদ্দিন লস্কর     ।। 

(C)Image:ছবি










ব্যস্ততার ঐ কালো আকাশে আজকাল 
মিলেনা আর চাঁদের দেখা,
মরে গেছে ইচ্ছেরা নেই চাওয়া পাওয়া
সময়ের তালে নিত্য একা।
সুখ-স্বপ্ন, অনুভূতি আর স্মৃতির পাতা
ভাসে আকাশে মেঘের মতো,
বাস্তব বলে এখন নেই কোন কিছু আর
 
বৈশাখী ঝড়ে ক্ষত-বিক্ষত।
নেই কোন লেনদেন ভারি খরার মরশুম
 
হিসেব গুলো শুষ্ক হয়ে মরে,
এই চাওয়া পাওয়া কভু পূর্ণতা পাবে কি?
এই শত ব্যস্ত দিনের পরে ?
ভেবে দিশেহারা অকালে ঝরে সর্ব আশা
জীবনটা ঝরা ফুলের মতো,
নীল আকাশে ভাসমান দুঃখ রাশি রাশি
 
ঐ মন পাখি আজ আহত।
ভবসাগরে ছন্নছাড়া এক নায়ের মাঝি
খুঁজে পাইনি কোন কূল,
একবারও ভাবিনি, আসেনি আমার মনে
 
চলার পথের শুরুটাই ভুল।
সেই বিরাট ভুলের মাশুল দিতে দিতে
আমি হয়ে গেছি খুবই ব্যস্ত,
জানিনা এই জীবনের জাগ্রত দিনমণি
 
কবে কোথায় হবে অস্ত।
জীবন সংগ্রামে অবিরাম লড়ে যাওয়া
আমি এক পরাজিত সৈনিক,
 
শুধু ব্যর্থতায় ডুবে গেছে আগপাছ
 
খুঁজে পাইনা জীবনের দিক।


১৫/০৫/২০১৮ ইং
নিতাইনগর, হাইলাকান্দি (আসাম)


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন