.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০১৬

পার্টি ওয়ার্কার্স

(C)Image:ছবি

























॥ নীলদীপ চক্রবর্তী ॥



    

তোমরা বললেই আমি চলে যেতে পারি সোজা
তোমরা বললেই আমি বেঁকে যেতে পারি
তোমরা তো বলনি শুধু শুধু বকুনি দিচ্ছ তাই
আমি কেটে নিতে, খুবলে ছিঁড়ে নিতে পারি !

তোমরা বলতেই বুকে বসিয়েছি ছুরি
পাকতেড়ে মারা পাকস্থলীর অন্ত্র নিয়েছি ছিঁড়ে
তোমরা বললেই লোহায় ফাটাবো মাথা
বোমা টোমা রাখবো এসে কোনও মেলার ভিড়ে

তোমরা বলতেই আহ্লাদে আঠখানা আমি
দেয়ালে দেয়ালে তোমাদের জয়গান গাথা
তোমরা দেখবে? আমি শ্রীঘরে চললাম এই –
পর্ণকুটিরে জননীর বুকে ছেলে হারানোর ব্যথা !

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন