.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

রবিবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০১৬

তিনটি কবিতা


 ।। চিরশ্রী দেবনাথ।।
(C)Image:ছবি






















রক্তসুখ
...........
পাঠানকোটের রক্ত ভেজা মাটিতে
মিশছে একটু একটু,
আর দেরী না করে,
পাকিস্তানের মাটি আবারো লালে লাল,
লাজুক পৃথিবীর প্রিয় রক্তারক্তি লাল গোলাপ,
এই চাষে তার কোন তরফদারি নেই ......


মন্দমেঘ
................
খনো কখনো ঘরে ফিরি,
মাঘজোৎস্নায় ভিজে থাকি সারাদিন।
দহনের আগে অথবা পড়ে,
তখন অবেলায় চোখ জ্বলে ওঠে
কি তোমার?
এ বনাঞ্চল উপদ্রুত,
অনেক আগেই ঘোষণা করেছে মন্দমেঘ ...


দুঃখনেশা
.................
কিছুদিন স্তব্ধতা দিও,
ধোঁয়ার স্তবকে আকাশের স্বাদ,
কিছুদিন, আরো কিছুদিন ঘন হয়ে থাকো,
তোমার ব্যর্থতা আমার মাদক, নেশাদুঃখ,
ডুবতে তবু এতো সময় নিচ্ছি কেন ...
  




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন