.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ১১ জুলাই, ২০১৮

চাষাবাদ

।। অভীক কুমার দে ।।









প্রতিবার বর্ষাজল গিলে একবুক কাদা জমি
নিচু থেকে আরও নিচে
নিষ্ফলা প্রায়,
আগাছায় ঢেকে গেছে সুখ।
অভাবের অসুখ
চুষে খায় ভেতর,
 
নরম জমি, একটু এগোলেই কাদামাটি টান
গিলে খেতে চায় লাঙল
বারবার হাল ধরে হাল ছাড়ে পোষা গরু।
ছোট বড় জোঁক বসতি গেড়ে আগাছায়,
শিরা কাটে,
চাষামন জানে গোপনে রক্ত খোঁজে চাষ।





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন