.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ৪ জুলাই, ২০১৭

ঔষধি প্রেম

।। চিরশ্রী দেবনাথ ।।
...............
(C)Image:ছবি




















জ এই সময় অশান্ত
অবসন্ন তরুণের চোখে  ছেয়ে আছে নগ্নআকাশ
 জমছে কোথাও কথাহীন বসন্তের বিকেল, মুকুলসন্ধ্যা
পথে হাত বাড়িয়ে দেওয়া  নির্জন কফিঘর
 থমকে থাকা সময়ে পাখির পালক তুলে নিচ্ছে,
ঘরফেরত কয়েকজন এবং অনেকজন বৃদ্ধ
তাতে নাকি মিশে আছে তরুণের অবসাদ, প্রেম এবং যৌনতা
শেষ চিঠি তারা কেউ লিখেনি
কালো অক্ষর ভেসে আছে ক্লান্ত শহরের জানালার ফ্রেমে
অবসাদ নিয়ে বৃদ্ধরা বানাবে ঔষধ,
অনাস্বাদিত অযাপিত সময়ের
পান করবে  শ্রাবণী পূর্ণিমায়,  নিশিযাপনে
অবসাদে নারী আসে, লোভ ধুয়ে দেয় বেঁচে থাকার
পৃথিবীর ঘ্রাণে জেগে ওঠা এই সব নারীরা সেবিকা মাত্র
তাদের জন্যই তরুণ ও বৃদ্ধরা বিষাদের  প্রহর গুণে
মরে যেতে যেতে বেঁচে ওঠে ...

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন