.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

রবিবার, ৯ জুলাই, ২০১৭

আগমন

        
।। রফিক উদ্দিন লস্কর ।।



 
(C)Image:ছবি

 














তুরাজ কড়া নাড়ে যৌবন দ্বারে
নুয়ে পড়ে পাহাড়ের লতা।
উন্মত্ত বাতাস উড়ে লাল শাড়ি,
শুধু বুকভরা তার ব্যথা।
মহুয়া বন তোলপাড় ঝড়ের ঝাপটে
সবকিছু ওড়নায় বাঁধা।
ঘুমোয়নি নগর শহর বন্দর,
কালো আকাশে মেঘ সাদা।
বাতাসে বাজায় সংগীত সুখ বেদনার,
হৃদয় নিঙড়ে দেয় সুর।
কাটে কালরাত বেদনা পরে
সৃষ্টি হয় সোনালি ভোর।
নামে ঝর্ণা পাহাড় থেকে নিয়ে হিমবাহ,
পরশ দেয় তৃষিত বক্ষে।
তরুশাখে কোকিল ডাকে,
তাকায় সে বিনিদ্র চক্ষে।
         *******
১০/০৭/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি (আসাম-ভারত)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন