.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ৭ জুলাই, ২০১৭

স্বপ্নের ভালোবাসা

                      
        ।। রফিক উদ্দিন লস্কর ।।






















তোমার ভালবাসার পরশ পেয়ে আশা হলো পূর্ণ,
তুমি বিনে আমার হৃদয় এতদিন ছিল শুধুই শূন্য।
শূন্য হৃদয় পেলো পূর্ণতা আজ আমি হয়েছি ধন্য,
শুকনো ভূমে নতুন করে পেলো জীবনের তারুণ্য।
রাঙিয়ে দিলে মোর শূন্য হৃদয়, দিয়ে মনের তুলি,
হৃদয়ে তব ছবি,স্বপ্নের আঁচড়ে আঁকা কেমনে ভুলি। 
যার পরশ পেয়ে পেলাম জীবন, আজি নতুন করে,
কত অজানা স্বপ্নবাসনা, নীরবে মোর হাতটি ধরে!
ছিলনা জানা, মন মেলেছে ডানা তব যাদুর পরশে,
রাঙা হৃদয় তোলপাড় করে, নেচে যায় প্রেম হরষে।
পেয়েছি সুধা, করেছি পান শুধু তোমায় ভালোবেসে,
রাখিও মোরে সারাটি জীবন, তোমার শুরু ও শেষে।
আমি করবো বাস সারাটি জীবন, তব হৃদয় মন্দিরে,
দেবো পূজা আরতি, রাখিব তোমায়, হাজারের ভিড়ে।
কালের যাত্রায় বা নিষ্ঠুর বাস্তবতায়, যদি থাকি দূরে,
তোমার মনের আসন থেকে আমি যেন না যাই সরে।
পারবো না! কখনো পারবো না, মন থেকে রাখতে দূরে,
আমার স্থানে থাকলে তুমি, জানি বলবে তা এমন সুরে।
শুধু তোমার জন্য করবো অপেক্ষা আমি শত সহস্র বর্ষ,
আমি পেতে চাই তোমারই ভালোবাসার হালকা স্পর্শ।
                      **********************
সাত/সাত/এক সাত
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি(আসাম-ভারত)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন