.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শনিবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৮

বেনেকাব নাচ


।। আবু আশফাক্ব চৌধুরী।।












র্ণময় আকাশ কার স্পর্শে ফ্যাকাসে হয়ে ওঠে
তার পরিচয় খুঁজে নিতে অতলান্ত সমুদ্র হয়ে ছুটে
গভীর দীর্ঘশ্বাস।
  ক্লান্ত পাখির নীড় বেড়ালের থাবা
যত্নসুখে কখনও কি গড়ে তুলে সখ্যতার ধাবা
দু দানা চিনি ছিটিয়ে দিয়েছ রাজপথে
ক্ষুধার্ত পিঁপড়েরা সারি বেঁধে কলরবহীন সুশৃঙ্খল মতে
অমূল্য সম্পদ ভেবে বয়ে নিচ্ছে দ্রুত গর্তে
এ সব কারুকাজে কোন বেমিল নেই বিনা শর্তে
তবে কেন কারো করস্পর্শে বিনষ্ট হয় আকাশ
গর্ভবতী লক্ষণ রেখে রক্তময় প্রকাশ
রাজপথ উলঙ্গ হয়ে বেনেকাব নাচে
দীর্ঘশ্বাসকে আশ্রয় দাও অনন্ত প্রেমের নীচে।
   

 (০৮/১০/২০১৭)





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন