.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বৃহস্পতিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬

ভাসান

তোমার সাথে আমার সম্পর্ক এখন জলের মত
মুঠোয় চেপে ধরতে চাইলেও ধরা যায়না
অথবা বলা যায় তুমি এখন অধরা
ছুঁয়ার আশায় হাত বাড়িয়ে দেওয়া মানে বাতুলতা।
অন্যের বুকে মাথা রেখে
তোমার নিরাপত্তার উষ্ণতা অনুভব
আমার মনে ছ্যাঁকা দেয়
ভাবি, প্রেম কি তবে নদীর জলে ভেসে উঠা
পচে যাওয়া কাঠামোর টুকরো
নিজের দিনে যা নাকি ঈশ্বরের প্রতিমূর্তি?

# চিত্রলেখারখোঁজে




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন