.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

রূপনগর সংবাদ --- ৩০


















।।মধুমিতা নাথ ।।


ল যাই সবুজ মেখে অবুঝ হবো।
ঝিলের নীলে , শ্যাওলা গায়ে পানকৌড়ি সাঁতার দেবো ---
একদিন সবুজ গায়ে রোদ লাগাবো।
চল যাই লালমাটিয়ার শুকনো পথে।
মৌ-পিয়া চাঁদ তাকায় যখন
টুকরো হেসে দুঃখ-রাতে ---
একদিন নিংড়ে পাঁজর বিষ ঝরাতে।
চল যাই আউলা চুলের বাউলা টানে।
বাঁশের বাঁশির পোড় খাওয়া সুর ,
রক্ত-আবীর ---- উদাস মনে ,
একদিন "শ্যাম-পিরীতি রাখ গোপনে" ।
চল যাই তর্ক ছেড়ে সহজ কথায়।
অনেক চলার অনেক বলার সূর্য্যডোবা
স্বপ্ন যখন মুক্তমনা ঝিনুক কুড়ায় ----
একদিন আমার পাওয়া তোর মোহনায় ।।

-----------//--------
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন