.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০১৬

এসো হত্যা




















।। চিরশ্রী দেবনাথ ।।

চাপাতি, গ্রেণেড আর তলোয়ারের সঙ্গে,
আমার নিতান্তই তুচ্ছ,
একটি প্রেমের কবিতা লিখতে বড়ো ভালো লাগে
মনে হয়  প্রান্তরে বসে আছি ধানের মতো
আমার থুতনিতে লেগে আছে কয়েকফোঁটা সন্ধ্যা
গলার কাছ দিয়ে নেমে আসছে  একটি প্রতিবেশী নদী
ফুটছে  কোথাও চাতালের সর্ষে রাত
হলুদ লবন মেখে লাল হয়ে যাচ্ছে ঘরের ছাদ
জিহ্বায় অমৃত স্বাদের অপেক্ষায়
আমি মুহূর্ত গুণি মৃত্যুর
আরো অনেক গুলো হত্যার পর সে আসবেই
খইবিতানে ঠিক তখনি আমার দেহ প্লাবিত হবে
কেমন করে মরতে হয়, কেমন করে কাঁদতে হয়,
ঠিক কেমন করে জ্বলে ওঠে একখন্ড আগুন..
শেখাবো তোমাকে
প্রান্তরে আমি একা... এসো হত্যা এসো...
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন