“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো ,স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ...তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!—সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!” ০কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ০

বৃহস্পতিবার, ৩ জানুয়ারী, ২০১৯

চিঠি

।। অভীক কুমার দে ।।

মেঘের খামে পাঠিয়েছিলাম চিঠি
তুমি অশ্রু ভরে ফেরত দিলে !

চিঠি দেখেই রেগে গেলে হঠাৎ
আগুন চোখে তাকিয়েছিলে, বিকট রকম খেঁকিয়েছিলে...
শব্দগুলো আগুন ছড়ায় যত
বুকের উপর ক্ষত ঘাঁটছিলে !
রঙিন যদি পথের আলো
মনের ঘরে কিসের কালো ?
তুমি শুকনো যে পথ ভিজিয়ে দিলে !

বুকের আগুন দেখতে যদি, ডুবতে যদি
বুঝতে ঠিকই কেমন আছি,
মেঘের খামে পাঠিয়েছিলাম চিঠি
তুমি অশ্রু ভরে ফেরত দিলে !

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন