“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো ,স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ...তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!—সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!” ০কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ০

শুক্রবার, ১১ জানুয়ারী, ২০১৯

জীবন-সুর



               













 ।।  সিক্তা বিশ্বাস ।।
               
কে বলেছে সাথী নেই !
রাখতে পারলেই আছে সেই !
ধরে রাখার আর্টটি
  শেখো ,
একা করতে কেউ পারবে না কো !
সাথী হারার গোপন ব্যথা !!
হবে শুধু কথার কথা !
মনের আকাশে জড়িয়ে থাকলে
 
স্মৃতিই সারাবে
  মনের ব্যথা !
দু'দিন শুধু ধৈর্য ধরো !
মনের সাথে লড়াই করো !
চিন্ময় ছবি ভাসবে মনে ...
বাঁচতে শেখাবে প্রতিটি ক্ষণে ...
বাঁচার লড়াই ই মনের জোর !
হেঁয়ালি ,অতৃপ্ততা যাবে সুদূর ...
এ যে বুটি-সঞ্জীবনী ,তৃপ্তি মধুর ...
বোধোদয়--আনন্দই মূল জীবন-সুর
   !!!
          **************


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন