Sponsor

.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

Sunday, May 22, 2016

ভাষা বালিকাঃ গুচ্ছ কবিতা

 ।। চিরশ্রী দেবনাথ ।।
(ধর্মনগর থেকে প্রকাশিত "পাখি সব করে রব’ কাগজে প্রকাশিত)

 
(C)Image:ছবি























ভাষা বালিকা ....এক.

ভাষার অমিয় পাত্রে একটু  'আমি '
কয়েকটি ছোট অক্ষর ভেসে যাক
এপার ওপার
আমিই সেই সাঁকো,
মুছে ফেলি না কখনো রক্তছাপ,
কুমকুমে, হরিদ্রাভ চন্দনে
গনগনে আঁচে জ্বালিয়ে রাখি আমাকে .......

ভাষা বালিকা ......দুই

তোমার একটি একটি চুমুতে
ভাষা আমার ডাহুক বেলা
জলের তীরে ভেজা মাটির মতো
নরম হয়ে মিশে থাকা ধানের শিকড়....

ভাষাবালিকা ....তিন

আম্রপল্লবে একরত্তি সিঁদুরটিপ
মায়ের মতো জেগে থাকে আমার কপালে
যে নিঃশ্বাস ঘুমের মাঝে অজান্তে
আমায় ছেড়ে চলে যায় ....
সেটুকুই ভাষা আমার যাপনে যাপনে.....

ভাষাবালিকা ....চার

আমার অশোকবনে
ভাষা ফেলে যায় তার জানকী চরণ
কাষায় বস্ত্রে আমাকে দেয় গৈরিক শুভেচ্ছা
কর্ষণে কর্ষণে স্বর্ণরেণু তে যদি ভরে যায় এ থলে
নাহয় কিছুদিন বন্দী রেখো দ্বিখণ্ডিত সত্তায় .....

ভাষাবালিকা .....পাঁচ

শরীর ঘিরে যবনিকাপতন
দুরন্ত দস্যুজাহাজ বয়ে নিয়ে যায় গচ্ছিত ভাষা
 দিনের পিপাসা তারা
অন্তঃসত্ত্বা হৃদয়, স্তনসুধা ঢেলে দেয়,
কচি কচি অক্ষরে ভাসিয়ে দিয়ে যাবো
আমার টুকরো টুকরো দিনান্তকুসুম ....

Post a Comment

আরো পড়তে পারেন

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...