.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ১ এপ্রিল, ২০১৬

বসন্ত ধুলো ....ঊনিশ

।। চিরশ্রী দেবনাথ ।।

(C)Image:ছবি




















পাখিবসন্তে  সব বসতবাটিতে প্রদীপ জ্বলে
অন্ধ বাতাস চিনে নিও তোমার  ঈশ্বর আবছা আলোয় ...
নাভিমূলে রোপন করো একটি নাগার্জ্জুন গাছ
যেখানে বেঁধেছে বাসা সেই সব পাখিরা
যাদের ঠোঁটে থাকে
নগ্ন লাল, নিষিদ্ধ ফল, অবৈধ সঙ্গী
মিত্রবাঁশীতে বেজে ওঠে যুদ্ধশীষ
আনমনা বনে  বনজ শয্যায় রমণীয় এক ব্যাধ
ভুলে গিয়ে তার যাবতীয় ব্যাধি, রঙিন অসুখ
সাঁজিতে তুলে নেয়  সেইসব মৃত পাখিদের
যাদের কোনদিন কেউ অনাঘ্রাতা ফুল ভেবেছিল



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন