.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৬

হাট্টিমাটিম টিম

মাঝে মাঝে ঠিক বুঝতে পারিনা
আমি কি সত্যি হাঁটছি
না একজায়গায় দাঁড়িয়ে !
মাঝে মাঝে পথ বিভ্রম হয়
রাস্তাটা বাঁয়ে না ডানে
এদিক না ওদিক - সামনে না পেছনে !
সকালে বিছানা ছাড়তেই
মাঝে মাঝে দ্বিধাগ্রস্থ হই
কোথায় পা রাখলাম
ঈশ্বর না শয়তানের মাটিতে
পদ্মবন না বধ্যভূমে !
মাঝে মাঝে বর্ণান্ধ-বিহ্বল হই
লালরঙা বিস্তীর্ণ আকাশ
সময়টা সূর্যোদয় না সূর্যাস্তের!
মাঝে মাঝে –
'জীবন' থেকে ‘যাপন’ বিচ্ছিন্ন হয়
হাসতে কাঁদি – কাঁদতে হাসি !
আমার এই ‘বেহাল আমি” বলবো বলেই
তোমার কাছে আসা।
তুমিওযে ওই একইরকম - এও জানি ...
পুবের জানালাটা খোলা হয়না অনেকদিন
পর্দা নড়লেই আগে টের পেতাম –
বাইরে বাতাস বইছে ...
এখন অট্টালিকা-দিন
এখন মৌনতা প্রবাহ
এখন কঙ্কাল-স্তব্ধতা
এখন জলজ কোলাহল
এখন হাট্টিমাটিম টিম
নারকেল ডগায় স্বপ্নের ডিম
এখন হাট্টিমাটিম টিম ।
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন