.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রতাপের ৬ষ্ঠ সংখ্যা প্রকাশিত

শিলচর মালিনী বিল থেকে প্রকাশিত কবি শৈলেন দাস সম্পাদিত প্রান্তিক জনগোষ্টির সাহিত্য চর্চায় নিবেদিত ছোট পত্রিকা 'প্রতাপ' এর ৬ষ্ট সংখ্যা তিনসুকিয়ায় অনুষ্ঠিত ৬ষ্ট উত্তরপূর্বাঞ্চলী লিটল মগ্যাজিন মেলায় প্রথম দিনের (২৪ ডিসেম্বর ২০১৬) গ্রন্থ উন্মোচন অনুষ্ঠানে উন্মোচন করলেন নিখিল ভারত বঙ্গ সাহিত্য সম্মেলনের সর্বভারতীয় উপ-সভাপতি ডঃ কীর্তি রঞ্জন দে।  মঞ্চে অন্যান্য বিশিষ্টজনদের মধ্যে ছিলেন অধ্যাপক পবিত্র সরকার, লিটল ম্যাগাজিন লাইব্রেরীর কর্নধার সন্দীপ দত্ত, অধ্যাপক উষারঞ্জন ভট্টাচার্য, নক্ষত্র বিজয় চৌধরী। এই সংখ্যার বিশেষ আকর্ষণ প্রয়াত কবি বিমলকান্তি দাসকে নিয়ে স্মৃতিচারণ ও কবিতা। এছাড়াও রয়েছে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর নিজের কথা।
'প্রতাপ' এর ৬ষ্ট সংখ্যায় লিখেছেন যারা -
প্রবন্ধ :
সুশান্ত কর, রেবতী মোহন দাস, সুজয়া ভট্টাচার্য, শর্মিলা দত্ত, সঞ্জীব কুমার দাস, প্রীতিভাজন ব্যক্তি ও জয়মনি দাস।
কবিতা :
মহুয়া চৌধুরী, শতদল আচার্য, শেলী দাসচৌধুরী, হাসনা আরা শেলী, রাজু দাস, সুমন দাস, ধ্রুবজ্যোতি মজুমদার, রাজেশ চন্দ্র দেবনাথ, সুশীল দাস ও শৈলেন দাস।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন