“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো ,স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ...তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!—সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!” ০কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ০

শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৯

আমি সেই আমি

     রফিক উদ্দিন লস্কর
একদিন তো এমনই ছিলো
ছিলোনা তো কোন হাত পা,
তবুও দৌড়ে শরীক হয়েছি
কল্পনা করতে পারিনা যা।

আমি যে তখন যুদ্ধ করেছি
চল্লিশ লক্ষ সৈন্যের সাথে,
পাগলের মতো ছুটছে ওরা
চার পাঁচশো রয়েছে হাতে।

কেউ যে মরেছে  ক্লান্ত হয়ে
পরাজিত হয়েছে কতেক,
উর্বর আসনটা দখল করি
আমি মহাশক্তিশালী এক।

আমার শুরু সংগ্রাম দিয়ে
একা ছিলাম তখনি আমি,
যুদ্ধ করে যে পেয়েছি প্রাণ
সেদিনটাতেও যাইনি থামি।
______________________

কোন মন্তব্য নেই: